Wednesday , 21 October, 2020

পেটের মেদ ঝড়াতে সহজেই বানিয়ে ফেলুন পানীয়, টানা ৩০ দিনে সেবন করুন।

অনেকেই ভেবে থাকেন যে পেটের মেদ নিয়ে সমস্যা শুধু মোটা মানুষের হয়। কিন্তু বিষয়টা আসলে তা নয় পেটের মেদের সমস্যা নিয়ে ভুগে থাকেন চিকন মানুষরাও। তাদের সারা শরীরে বাড়তি চর্বি বা মাংস না থাকলেও পেটের সামনে চর্বি বাসা বাধে গোল করে। আর এই মেদ শুধু যে সৌন্দর্য নষ্ট করে তা নয় ডেকে আনে শরীরের বিভিন্ন অসুখ।

তাই আপনার শরীরের পেটের মেদ কমানোর জন্য ডায়েটে রাখতে হবে স্বাস্থকর খাবার ও পানীয়। আর এই ক্ষেত্রে কয়েকটি পানীয় রয়েছে যা আপনার পেটের মেদ দ্রুত কমাতে সাহায্য করবে। আড়েই সব পানীয় আমরা তৈরী করতে পারবো খুব সহজেই।

লেবু-জল: লেবুর গুনের কথা কে না জানে ? আর এই লেবুর রস সকাল বেলা হালকা গরম জলে মিশিয়ে খেলে খুব দ্রুত গলতে শুরু করে পেটের চর্বি। আর লেবুতে থাকা প্রচুর এন্টি অক্সিডেন্ট ও পেকটিন ফাইবার খুব সহজেই আপনার পেতে জমে থাকা বাড়তি মেদ গলিয়ে দেবে। আপনি এক গ্লাস গরম জলে কয়েকফোটা লেবুর রস ও একটু মধু মিশিয়ে খেয়ে দেখুন উপকার পাবেনই।

গ্রিন টি: আমাদের দেশে এখন গ্রিন টি খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এই পানীয়তে থাকা ক্যাটেচিন্স নামক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, যা ফ্যাট বার্ন করে এবং মেটাবলিজম বাড়ায়। আর আপনি যদি গ্রিন টি চিনি ছাড়া পান করেন তাহলে অনেক বেশি উপকার পাবেন। তাই মেদ কমাতে গেলে সারাদিনে ২-৪ কাপ গ্রিন টি খেতেই পারেন।

জিরা ভেজানো জল : সবার রান্না ঘরের মশলার অন্যতম বস্তু হলো জিরা। আর এই মশলাটি যে শুধু খাবারের স্বাদ ও গন্ধ বাড়িয়ে তোলে তা নয়। এই জিরা আমাদের শরীরে বিভিন্ন ভাবে উপকার করে থাকে। আপনি যদি জিরা মেশানো পানীয় খান তাহলে আপনার হজম শক্তি খুব দ্রুত বৃদ্ধি পাবে।

এই পানীয় আপনার খিদে নিয়ন্ত্রণ করবে ও আপনাকে বেশি খাওয়া থেকে বিরাট রাখবে। তাই এক গ্লাস জলে এক চামচ জিরে ভিজিয়ে রাখুন পরদিন সকালে খান উপকার পাবেন অবসসই।

অ্যালোভেরার রস : আমাদের শরীরের ভিশন উপকারী একটি বস্তু হলো এলোভেরা। আলোভেরাতে প্রচুর খনিজ ও আন্টি অক্সিডেন্ট থাকে। এলোভেরা আমাদের হজম ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়ও ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাই এই পানীয় নিয়মিত খেতে পারেন আর পানীয়ের স্বাদ বাড়ানোর জন্য কয়েক ফোটা লেবুর রস ও মধু মিশিয়ে খেতে পারেন।

About Lipu Chowdhury

Check Also

হঠাৎ করে প্রেসার বেড়ে বা কমে গেলে খুব দ্রুত যা করবেন এবং খাবেন।

হাই ব্লাড প্রেসার বা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন অনেকেই। সঠিক খাদ্যগ্রহণের মাধ্যমে এর থেকে দূরে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *