ওয়েবসাইট তৈরি করুন সম্পূর্ণ ফ্রি, সেরা ৬টি ওয়েব বিল্ডার

বর্তমানে স্মার্ট ফোনের ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই সবাই চায় মোবাইলে যেন সব ধরণের কাজ করা যায়। কারণ অনেকের কম্পিউটার ও ল্যাপটপ কেনার সামর্থ থাকে না। তাই আজকে আমরা জানব কিভাবে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়। এন্ড্রোয়েড মোবাইল দিয়ে বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করার সুবর্ণ সুযোগ রয়েছে আপনার জন্য। এই ওয়েবসাইট তৈরী করে আপনি খুব সহজেই অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ইন্টারনেটে প্রতিদিন হাজার হাজার ওয়েবসাইট বানানো হচ্ছে। মনে রাখবেন মোবাইল দিয়ে যদি ওয়েবসাইট তৈরী করে টাকা আয় করতে চান তাহলে আপনার ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে।

শুধু মোবাইল নয় আপনি চাইলে কম্পিউটার বা ল্যাপটপের মাধ্যমেও এই ওয়েব বিল্ডার দিয়ে বিভিন্ন রকমের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য কোনো কোডিং নলেজ থাকতে হবে কি না? হ্যা! আপনার বেসিক কিছু কোডিং নলেজ থাকা প্রয়োজন। আপনি যদি প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট তৈরী করতে চান তাহলে তেমন কোডিং নলেজের দরকার হবে না।

কারণ প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট তৈরী করার জন্য বেশিরভাগ মানুষ থিম ক্রয় করে থাকে। আর থিমের মধ্যে ওয়েব ডেভেলপার’রা সম্পূর্ণ কোডিং করে দেয়। যার জন্য ইউজারের কোনো কোডিং করতে হয় না।

আরো পড়ুন-

যারা বিনামূল্যে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরী করতে চায় তাদের জন্য বেসিক কোডিং নলেজ অনেক গুরুত্বপূর্ণ। মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য বিভিন্ন প্লাটফর্ম রয়েছে।

যেমন ধরণের আপনি যদি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে Blogger-ব্যবহার করতে পারেন। শুধু তাই নয় মোবাইলে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরী করার জন্য আরো অনেক ধরণের প্লাটফর্ম রয়েছে যেগুলো নিয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

অন্যদিকে আপনি যদি মোবাইলে দিয়ে প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট খুলতে করতে চান তাহলে আপনার ডোমেইন, হোস্টিং ও থিমের প্রয়োজন হবে। যেগুলো আপনার টাকা দিয়ে ক্রয় করতে হবে।

প্রিমিয়াম সাইট তৈরির জন্য আপনি WordPress, Joomla ও Laravel-প্লাটফর্ম ব্যবহার করতে পারেন। এগুলো হচ্ছে সারা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লাটফর্ম। এছাড়া এই প্লাটফর্মগুলোর মাধ্যমে আপনি ফ্রি ওয়েবসাইটও তৈরি করতে পারবেন।

বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করার সুবিধা

বর্তমানে স্মার্ট ফোন দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরী করা যায়। বিনামূল্যে ফ্রী ওয়েবসাইট তৈরী করলে আপনার কোনো অর্থের প্রয়োজন হবে না। আপনি একটি ওয়েব প্লাটফর্মের মাধ্যমে একটি ফ্রি ডোমেইন নিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

এছাড়া আপনি যদি ভবিষ্যতে কোনো প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট খোলার প্লান করে থাকেন তাহলে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরী করে ওয়েবসাইট ব্যবহার করার সম্পর্কে বেসিক নলেজ অর্জন করতে পারবেন।

তাই আপনি যদি ওয়েবসাইট তৈরি করে বিভিন্ন কনটেন্ট পাবলিশ করে কোনো এক সময় টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে প্রথমে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট বানিয়ে ফেলতে পারেন।

এছাড়া আপনি ফ্রি ওয়েবসাইট বানিয়ে যদি ভালো কনটেন্ট পাবলিশ করে ভালো মানের ভিজিটর নিয়ে আসতে পারেন তাহলে ভবিষ্যতে ফ্রি ওয়েবসাইটকে প্রিমিয়াম করতে পারবেন।

প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট তৈরি করার সুবিধা

কেউ যদি ওয়েবসাইট তৈরী করতে চায় তাহলে তার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট। অর্থাৎ টাকা দিয়ে ডোমেইন, হোস্টিং ক্রয় করে ওয়েবসাইট তৈরি করা। সুতরাং ওয়েবসাইট খুলে আয় রোজগার ও ভালো ডিজাইন করার জন্য প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট খুলবেন।

ফ্রি ওয়েবসাইটে আপনি লোডিং স্পিড কম পাবেন এবং ওয়েবসাইটের সিকিউরিটি কম থাকে। এছাড়া আপনি ভালো মানের ডিজাইন করতে পারবেন না।

আপনি যদি ভালো মানের সুন্দর একটি ডিজাইন করা ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট বানানোর চেষ্টা করবেন।

অন্যদিকে আপনি যদি প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট তৈরি করে থাকেন তাহলে গুগল আপনার ওয়েবসাইটকে ফ্রি ওয়েবসাইটের চেয়ে বেশি প্রাধান্য দিবে।

এর ফলে আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্ট র‍্যাংক হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে অনেক বেশি। বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষ প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট বানিয়ে থাকে।

এর বড় একটি কারণ হচ্ছে এখন বাংলাদেশে অনেক হোস্টিং প্রোভাইডার রয়েছে যারা খুবই অল্প টাকা ডোমেইন-হোস্টিং বিক্রয় করে থাকে।

এছাড়া অনেক হোস্টিং প্রোভাইডার রয়েছে যাদের কাছ থেকে হোস্টিং ক্রয় করলে ডোমেইন ও সিকিউরিটি সার্টিফিকেট ফ্রি প্রদান করে থাকে। তাই আপনি চাইলে খুব অল্প খরচে একটি প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট বানাতে পারেন।

ওয়েবসাইট তৈরি করার উপায়

১। ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েব বিল্ডার হচ্ছে WordPress.Com-। আপনি এই বিল্ডার দিয়ে যেকোনো ধরণের সাইট বানাতে পারবেন কোনো কোডিং নলেজ ছাড়াই।

ওয়েবসাইট-তৈরির-পদ্ধতি

যারা মোবাইল দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট খুলার কথা ভাবছেন তাঁরা এই প্লাটফর্মটি বেঁছে নিতে পারেন। এছাড়া ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে PHP-এর একটি ফ্রেমওয়ার্ক যা পিএইচপি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করলে সবচেয়ে বেশি সুবিধা হচ্ছে হাজার হাজার ফ্রি প্লাগইন পাওয়া যায়। যেগুলো দিয়ে একটি ওয়েবসাইট সম্পূর্ণ গেটাপ চেঞ্জ করে দেওয়া সম্ভব।

অর্থাৎ অসাধারণ একটি ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন। এছাড়া এই বিল্ডারে আপনি হাজার হাজার ফ্রি থিম পাবেন যেগুলো দিয়ে কোডিং নলেজ ছাড়াই ওয়েবসাইটের ডিজাইন করতে পারবেন।

আপনি কম্পিউটার বা মোবাইল দিয়ে ওয়ার্ডপ্রেসে সাইট খুলতে পারবেন। ওয়ার্ডপ্রেসে ওয়েবসাইট তৈরি করলে আপনি একটি ড্যাশবোর্ড পাবেন যারা মাধ্যমে সম্পূর্ণ ওয়েবসাইটকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। আর এই ওয়েব বিল্ডারের মাধ্যমে আপনি চাইলে ফ্রিতেই একটি সাইট খুলতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেসে অনেক ভালো গুপনীয়তা রয়েছে যার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটের তথ্যগুলো হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

যারা ওয়েবসাইট সম্পর্কে তেমন ভালো জানে না তাঁরা এই ওয়েব বিল্ডার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরী করলে যেকোনো কিছু খুব সহজেই বুঝতে পারবেন এবং আপনার জন্য সবকিছু খুব সহজ হয়ে যাবে।

২। ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি

গুগলের একটি পণ্য Blogger.com-। আপনি যদি ইন্টারনেট সম্পর্কে জেনে থাকেন বা আইটি নলেজ সম্পর্কে কোনো ধারণা থাকলে অবশ্যই গুগল নামটি শুনেছেন। গুগল হচ্ছে সারা বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন। আর এই গুগলের বিভিন্ন পণ্য রয়েছে তার মধ্যে একটি হচ্ছে ব্লগার ডটকম।

মোবাইল-দিয়ে-ওয়েবসাইট-তৈরি

Blogger-হচ্ছে একটি ওয়েব পেজ বিল্ডার। যার দ্বারা হাজার হাজার ওয়েবসাইট বানানো হয়েছে। যখন ওয়ার্ডপ্রেস জনপ্রিয়তা অর্জন করেনি তখন ব্লগস্পট ডটকম অনেক জনপ্রিয় ছিল। কিন্তু এই দুটি ওয়েব বিল্ডার সারা ওয়ার্ল্ডের মধ্যে এখন পর্যন্ত জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছে।

ইন্টারনেটে আপনি কিছু ওয়েবসাইট ভিজিট করলে দেখতে পারবেন সাইটের নামের শেষে Blogspot.Com-লেখাটি আছে। আর এটা থাকলে আপনি খুব সহজেই বুঝতে পারবেন যে সেটা Blogger-দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়েছে। ব্লগার দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরী করে অনেকে মাসে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করছে।

আপনি ব্লগার দিয়ে বিভিন্ন ধরণের সাইট খুলতে পারবেন তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে নিউজ বা ব্লগ সাইট। এইসব ধরণের সাইট খুলে অনেকে গুগল এডসেন্সের মাধ্যে মাসে অনেক টাকা আয় করছে। আপনি চাইলে মোবাইল দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট খুলতে পারবেন এই ব্লগার ওয়েব বিল্ডারে।

অনেকেই আছে যাদের টাকা দিয়ে ওয়েবসাইট খুলার সামর্থ নেই। তাঁরা এই ওয়েব বিল্ডারের মাধ্যমে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। ওয়ার্ডপ্রেসের মতো ব্লগার বিল্ডারেও একটি ড্যাশবোর্ড রয়েছে যার দ্বারা সম্পূর্ণ ওয়েবসাইট কন্ট্রোল করা যাবে।

এছাড়া বিভিন্ন থিম বা টেমপ্লেট যেগুলো সম্পূর্ণ ফ্রি ব্যবহার করতে পারবেন ওয়েবসাইটের জন্য। যেহেতু এটা একটি গুগলের পণ্য তাই এটার মধ্যে তথ্য হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। সুতরাং আপনি খুব সহজেই ডোমেইন-হোস্টিং ছাড়া মোবাইল দিয়ে বিনামূল্যে একটি ওয়েবসাইট খুলতে পারেন।

৩। Tumblr-দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরী

আপনি যদি একটি ব্লগ বা নিউজ সাইট তৈরি করতে চান তাহলে টাম্বলার দিয়ে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরী করতে পারেন। খুব সহজে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য টাম্বলার অন্যতম।

বিনা-খরচে-তৈরী-করুন-ওয়েব-সাইট

আপনার কাছে কোনো কম্পিউটার বা ল্যাপটপ না থাকলে মোবাইলের মাধ্যমে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট খুলে মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবেন।

অথবা যারা ওয়েবসাইট তৈরী করে কাজ শিখতে চান তাহলে টাম্বলার দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। অনেকে আছে যারা ফ্রি ওয়েবসাইট দিয়ে বিভিন্ন কাজ শিখে থাকে যেমনঃ এসইও, আর্টিকেল রাইটিং ইত্যাদি।

আপনি একটি ইমেইল দিয়ে সাইন আপ করে একাউন্ট খুলে নিবেন। এবং সেখানে একটি ইউনিক ডোমেইন নাম নির্বাচন করবেন তারপর আপনি একটি ড্যাশবোর্ড পাবেন। যেটার মাধ্যমে আপনার ব্লগ বা নিউজ ওয়েবসাইট বিভিন্ন কাস্টমাইজেশন ও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

টাম্বলারে একাউন্ট খুলার পর আপনাকে একটি ফ্রি থিম দেওয়া হবে ও ডোমেইন-হোস্টিং বিনামূল্যে দেওয়া হবে। আপনি যদি ভালো মানের কনটেন্ট পাবলিশ করতে পারেন তাহলে আপনি গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। সুতরাং আপনি টাম্বলার ওয়েব বিল্ডার দিয়ে মোবাইলের জন্য ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারেন।

৪। Wix-দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি

মোবাইল দিয়ে একটি সুন্দর ওয়েবসাইট বানানোর জন্য Wix.Com-এর সহায়তা নিতে পারেন। মানুষ ওয়েবসাইট খুলে থাকে বিভিন্ন কারণে তার মধ্যে যারা বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করে তাঁরা মূলত নিজের পোর্টফলিও, বেসিক ওয়েবসাইট নলেজ ও টাকা ইনকাম করার জন্য ওয়েবসাইট বানায়।

ওয়েব-পেজ-খোলার-নিয়ম

Wix.Com-দিয়ে ওয়েবসাইট খুলার সময় আপনার সামনে বিভিন্ন অপশন আসবে। আপনি যেই রকম ওয়েবসাইট তৈরী করতে চাচ্ছেন সেটা সিলেক্ট করবেন।

যাদের কাছে ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে অর্থ নেই তাঁরা এই ওয়েব বিল্ডারের মাধ্যমে খুব সহজেই একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন। আপনি এই বিল্ডার দিয়ে বিভিন্ন রকমের সাইট বানাতে পারবেন যেমনঃ ব্লগ বা নিউজ, ই-কমার্স ও বিউটি ইত্যাদি।

আপনার ওয়েবসাইটকে কন্ট্রোল করার জন্য একটি ড্যাশবোর্ড পাবেন। এছাড়া আপনার জন্য ফ্রি টেমপ্লেট বা থিম দেওয়া থাকবে। Wix.Com-এ খুবই ভালো মানের ডিজাইন করা টেমপ্লেট পাবেন।

এছাড়া এই বিল্ডারে ভালো গুপনীয়তা রয়েছে যারা জন্য আপনা তথ্য হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা নেই। সুতরাং Wix-বিল্ডারের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই একটি ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন।

৫। Shopify-দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরী

শপিফাই হচ্ছে সারা বিশ্বের জনপ্রিয় একটি অনলাইন স্টোর। আপনি যদি ড্রপশপিং-এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে Shopify.Com-দিয়ে একটি ও-কমার্স সাইটে তৈরি করে নিতে পারেন।

ওয়েবসাইট-তৈরি-করতে-চাই

আর এর জন্য আপনার কোনো টাকা খরচ করতে হবে না। আপনি বিনামূল্যে একটি ও-কমার্স সাইট বানিয়ে নিতে পারবেন। শপিফাই মূলত একটি বিজনেস রিলেটেড ওয়েব বিল্ডার যারা দ্বারা হাজার হাজার ই-কমার্স সাইট তৈরি করা হয়েছে।

আপনি যদি শপিফাই দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করে থাকেন তাহলে আপনাকে তাঁরা সম্পূর্ণ ফ্রি সার্ভিস প্রদান করবে। আপনার ও-কমার্স ওয়েবসাইট কন্ট্রোল করার জন্য একটি ড্যাশবোর্ড দেওয়া থাকবে।

শপিফাই দিয়ে ওয়েবসাইট খুলার পর আপনি বিভিন্ন পণ্য বিক্রয় করতে পারবেন এবং শপিফাই থেকে ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। সুতরাং খুব সহজেই মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন শপিফাইয়ের মাধ্যমে।

৬। Webnode-দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি

কোনো ধরণের কোডিং নলেজ ছাড়া আকর্ষনীয়ভাবে একটি ওয়েবসাইট নির্মান করার জন্য Webnode-পেজ বিল্ডার ব্যবহার করতে পারেন। আপনি বিনামূল্যে ফ্রি ওয়েবসাইট খুলার জন্য Webnode.Com-এ একটি একাউন্ট খুলে নিতে পারেন।

ওয়েব-সাইট-গাইডলাইন

 

Webnode.Com-আপনাকে সম্পূর্ণ ফ্রি ডোমেইন ও হোস্টিং প্রদান করবে। এছাড়া আপনার জন্য তাঁরা বিভিন্ন রকমের সুন্দর থিম তৈরি করেছে যেগুলো বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে। আপনি চাইলে বিজনেস রিলেটেড বা ব্লগ ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন।

Webnode-এ অনলাইন স্টোর রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি ও-কমার্স সাইট তৈরি করে ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা উঠাতে পারবেন। এই ওয়েব বিল্ডারে যথেষ্ট গুপনীয়তা রেয়েছে যার জন্য আপনার তথ্যগুলো নিরাপদে থাকবে।

Webnode.Com-দ্বারা হাজার হাজার ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়েছে ইন্টারনেটে। আপনার ওয়েবসাইট সম্পূর্ণভাবে কন্ট্রোল বা কোনো ডিজাইন করার জন্য একটি ড্যাশবোর্ড দেওয়া থাকবে। সুতরাং আপনি চাইলে এই ওয়েব বিল্ডার দিয়েও একটি ওয়েবসাইট ফ্রিতে খুলে নিতে পারেন।

সর্বশেষ,

কম্পিউটার, মোবাইল বা ল্যাপটপ দিয়ে বিনামূল্যে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য উপরোক্ত ওয়েব বিল্ডারগুলো ব্যবহার করতে পারেন। যারা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে আপনাকে ডোমেইন ও হোস্টিং দিবে এবং এর পাশাপাশি থিম ও তথ্যের নিরাপত্তা প্রদান করবে।

আপনি যদি এই বিল্ডারগুলো দিয়ে ওয়েবসাইট খুলতে কোনো সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন তাহলে ইউটিউবে টিউটোরিয়াল দেখতে পারেন। ইউটিউবে এই বিল্ডারগুলো নিয়ে অনেক ভালো ভিডিও পাবেন। আর্টিকেলটি ভালো লাগলে কমেন্ট ও শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ!

আপনার কাছে পোষ্ট টি কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন ৷ T=(Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আরো ভালো ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

About SM Simol

আমি সিমুল, বিশ্ববিদ্যালয় পড়াশোনা করি ও এর পাশাপাশি আমি একজন আর্টিকেল রাইটার। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে এই সাইটে ব্লগ পোস্ট পাবলিশ করি ও "BanglaAdvice.Com"-সাইটের (এডমিন) আমি। আমার সৃজনশীল মেধাশক্তিকে কাজ লাগিয়ে আর্টিকেল তৈরি করে থাকি এবং বিভিন্ন সাইট এর আলোচিত খবর গুলো প্রকাশ করে থাকি ।

Check Also

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করার উপায়

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করবেন কিভাবে? [ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি ]

অনলাইনে মার্কেটিং করার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং এর অন্তর্ভুক্ত এফিলিয়েট মার্কেটিং (Affiliate Marketing)-অনেক জনপ্রিয়। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *