এক হাতে প্রেমিকা, অন্য হাতে বাবা-মায়ের পছন্দের মেয়ে! দু’জনকেই বিয়ে করলেন সন্দীপ

বিয়ে তো অনেক হয়। কিন্তু খুব কম সময়েই কিছু বিয়ে সংবাদ মাধ্যমে জায়গা করে নেয় বিশেষ কিছু কারণে। মধ্যপ্রদেশেই এমন একটি বিয়ে হয়েছে সম্প্রতি। যেখানে একজন পাত্র দুই পাত্রীকে একসঙ্গে বিয়ে করেছেন। আজ্ঞে হ্যাঁ, শুনতে অবাক মনে হলেও মধ্যপ্রদেশের বেতুল জেলার এমনই ঘটনা ঘটেছে।

মজার ব্যাপার হল, পুরো বিষয়টাই তিন পরিবারের সম্মতিতে হয়েছে! কারোর কোনও আপত্তি ছিল না এই বিয়েতে। ঘটনাটি গত ২৯ জুনের। বিয়ের মণ্ডপে এক যুবক নিজের প্রেমিকা, ও বাবা-মায়ের পছন্দের মেয়ে উভয়কেই এক সঙ্গে বিয়ে করেছেন।

দুই মেয়ে ও ছেলের পরিবার ছাড়াও পুরো গ্রাম এই বিয়েতে শামিল হয়েছল। দুই যুবতিকে একসঙ্গে বিয়ে করা এই যুবকের নাম সন্দীপ। তাঁর প্রেমিকার নাম সুনন্দা এবং বাবা মায়ের পছন্দ করা মেয়ের নাম শশীকলা বলে জানা গিয়েছে।

ঘটনা হচ্ছে, সন্দীপ ভোপালে আইটিআই পড়ার সময় সুনন্দার সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব ও প্রেমের সম্পর্ক হয়। অন্যদিকে সন্দীপের পরিবার এর মধ্যেই গ্রামের মেয়ে শশীকলার সঙ্গে তাঁর বিয়ে ঠিক করে রেখেছিল। যা নিয়ে তিন পরিবারের মধ্যে জোর বিবাদ লাগে।

বিবাদ মেটাতে গ্রামের কায়দায় খাপ পঞ্চায়েত ডাকা হয়। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয়, যদি দুই মেয়ে একই পাত্রকে বিয়ে করতে সম্মত থাকে তবে তাদের বিয়ে দিয়ে দেওয়া হোক। এই প্রস্তাবে সুনন্দা এবং শশীকলা দু’জনেই রাজি হয়ে যায়।

দেখুন সেই ভিডিও

এহেন আশ্চর্য বিয়ের পরও তিন পরিবারের মধ্যে কোনও অশান্তি হয়নি, যা সবথেকে ইতিবাচক বিষয়। বিয়ের পর সুনন্দা ও শশীকলা দু’জনেই খুশি। তবে সন্দীপ এখন কী অবস্থায় রয়েছে তা ঠিকভাবে জানা যায়নি…

আপনার কাছে পোষ্ট টি কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন ৷ T=(Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আরো ভালো ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

About Lipu Chowdhury

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *