Saturday , 19 September, 2020
ইউটিউব-ভিডিও-ডাউনলোড

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার ৬টি সহজ উপায়

ইউটিউব থেকে হাই স্পিডে Video download করার জন্য সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি আজকে আপনার সাথে শেয়ার করবো। মোবাইল বা ল্যাপটপ সব ডিভাইসে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে চাইলে এই আর্টিকেলটি মন দিয়ে পড়ুন। অনেকেই ইউটিউবে মজার মজার ভিডিও দেখে কিন্তু সেগুলো ডাউনলোড করে মেমোরি কার্ডে রাখার জন্য কোনো উপায় খুঁজে পায় না। তাই আজকে আমি দেখাব কিভাবে ইউটিউব থেকে ফুল এইচডি ভিডিও ডাউনলোড করা যায়।

ইউটিউবের ভিডিও সংগ্রহ করার জন্য বিভিন্ন নিয়ম ও মাধ্যম আছে যেটা মোবাইল বা কম্পিউটারের জন্য ভিন্ন ধরণের ভূমিকা রাখে। গুগল প্লে স্টোরে বা অনলাইনে অনেক এপস রয়েছে যেগুলো দিয়ে মোবাইলে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। এছাড়া কম্পিউটারের জন্য অনলাইনে বিভিন্ন সফটওয়্যার ও ব্রাউজারের এক্সটেনশন আছে যেগুলো দিয়ে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। কিন্তু আমি আপনাকে দুই ডিভাইসের জন্যই ইউটিউবের ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম দেখাব। তার আগে আমাদের ইউটিউব সম্পর্কে কিছু ধারণা নেওয়া দরকার।

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

ইউটিউব সারা বিশ্বের জনপ্রিয় একটি ভিডিও প্লাটফর্ম। যেখানে লক্ষ লক্ষ মানুষ ভিডিও দেখার জন্য ভিজিট করে থাকে। শুধু তাই নয় ইউটিউবে লক্ষ লক্ষ ভিডিও আপলোডারও আছে যারা বিভিন্ন শিক্ষামূলক ও বিনোদনমূলক ভিডিও দিয়ে থাকে। ইউটিউবের এপস দিয়ে আপনি বিভিন্ন ভিডিও দেখার পাশাপাশি ডাউনলোডও করার সুযোগ রয়েছে কিন্তু সেটা অ্যাপের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। অর্থাৎ video download করলে অ্যাপের মধ্যে থাকবে কিন্তু মেমোরি কার্ডে আনা যাবে না।

আরো পড়ুন-

আপনি কি জানেন ইউটিউব কাদের অধীনে? হ্যা! ইউটিউব হচ্ছে গুগলের অধীনে। জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল এর একটি পণ্য হচ্ছে ইউটিউব যা মানুষকে বিভিন্ন ভাবে সেবা দিয়ে আসছে। গুগলের আরো অনেক ধরণের পণ্য রয়েছে যেমনঃ গুগল ড্রাইভ, জিমেইল, গুগল ক্রম ও গুগল প্লে স্টোর ইত্যাদি।

মোবাইল দিয়ে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড

YouTube video download করার জন্য অনেক ধরণের উপায় রয়েছে যার মধ্যে অন্যতম ভিটমেট এপস। এই অ্যাপটি আপনি গুগল প্লে স্টোরে পাবেন না কিন্তু অনলাইনে পাওয়া যাবে খুব সহজেই। ভিটমেট এপস দিয়ে সুপার ফাস্ট স্পিডে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।

ভিটমেট থেকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডের উপায়

প্রতিদিন যেভাবে ইউটিউবে প্রবেশ করেন সেভাবেই প্রবেশ করে কোনো একটি ভিডিও ওপেন করবেন। এখন ভিডিওটি ডাউনলোড করার জন্য ভিডিওর নিচে দেখবেন কিছু অপশন রয়েছে যেমনঃ লাইক, শেয়ার ইত্যাদি এবং এখান থেকে আপনাকে শেয়ার বাটনে ক্লিক করতে হবে।

মোবাইলে-ইউটিউব-ভিডিও-ডাউনলোড

শেয়ার বাটনে ক্লিক করলে দেখবেন আপনার মোবাইলের কতগুলো এপস শো করছে। এখন আপনি যদি ভিটমেট এপসটি মোবাইলে ইন্সটল করে থাকেন তাহলে সেখানে এই এপসটিও দেখাবে। সুতরাং ভিটমেট এপসটি দেখার পর সেটায় ক্লিক করবেন।

ভিটমেট-ভিডিও-সফটওয়্যার

এপসটিতে ক্লিক করলে সাথে সাথে অটোম্যাটিক ভিটমেট অ্যাপের মধ্যে চলে যাবেন। এবং সেখানে অটোম্যাটিক ডাউনলোড করার অপশন চলে আসবে।

ভিটমেট-থেকে-ভিডিও-গান

এখন আপনি চাইলে যেকোনো আঁকারে ভিডিওটি মেমোরি কার্ডে সংগ্রহ করতে পারবেন যেমনঃ অডিও, ভিডিও এবং ফুল এইচডি ডাউনলোড করার অপশন। সুতরাং এভাবে আপনি খুব সহজেই ভিটমেট অ্যাপস দিয়ে YouTube video download করতে পারবেন হাই স্পিডে। এছাড়া আপনি চাইলে সরাসরি ভিটমেট অ্যাপের মধ্যে প্রবেশ করে ইউটিউবে ভিজিট করতে পারবেন কারণ সেখানে বিভিন্ন জনপ্রিয় সাইটের নাম দেওয়া আছে।

টিউবমেট এপস দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

মোবাইল দিয়ে ইউটিউবের ভিডিও মেমোরি কার্ডে সংগ্রহ করার জন্য খুবই ভালো একটি অ্যাপস টিউবমেট। এই এপস দিয়ে আপনি ইউটিউবের যেকোনো ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন সুপার ফাস্ট স্পিডে।

এই অ্যাপ দিয়েও ইউটিউব ভিডিও সংগ্রহ করার জন্য ইউটিউবে ভিজিট করতে হবে এবং কোনো একটি ভিডিও ওপেন করে শেয়ার বাটনে ক্লিক করলে বিভিন্ন ধরণের এপস দেখতে পারবেন এবং সেখানে টিউবমেট অ্যাপটি দেখে ক্লিক করলে অটোম্যাটিক টিউবমেট অ্যাপে নিয়ে যাবে।

মোবাইলে-ইউটিউবের-ভিডিও-ডাউনলোড

এখন সেখানে ভিডিও ডাউনলোড করার অপশন আসবে এবং সেখান থেকে যেকোনো ফরম্যাটে ভিডিও সংগ্রহ করতে পারবেন আপনার মোবাইলের মেমোরি কার্ডে।

টিউবমেট-ইউটিউব-ডাউনলোডার

এভাবে আপনি ইউটিউবের ভিডিও মোবাইল দিয়ে খুব সহজেই ডাউনলোড করতে পারবেন। আপনি চাইলে ভিটমেট অ্যাপের মতো সরাসরি ইউটিউবে ভিজিট না করে টিউবমেট অ্যাপে ভিজিট করে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। এই অ্যাপগুলো আপনি গুগল প্লে স্টোরে পাবেন না কিন্তু অনলাইনে সার্চ করলেই খুব সহজেই ডাউনলোড করে মোবাইলে ইন্সটল করতে পারবেন সম্পূর্ণ ফ্রি।

স্ন্যাপটিউব দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

মোবাইল দিয়ে স্ন্যাপটিউবের মাধ্যমে ইউটিউব, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম অথবা যেকোনো ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে। এই এপটি আপনি গুগল প্লে স্টোরে পাবেন না, তাই আপনাকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে অনলাইন থেকে সংগ্রহ করতে হবে। স্ন্যাপটিউব এপস সংগ্রহ করে মোবাইলে ইন্সটাল দিয়ে অ্যাপটিতে ভিজিট করবেন। এবং সেখানে বিভিন্ন সাইটের নাম দেখতে পারবেন। যেই সাইট থেকে ভিডিও মেমোর্ডি সংগ্রহ করতে চান সেটা ক্লিক করবেন।

এখন আপনার পছন্দের ভিডিওটি ওপেন করলে সেখানে অটোম্যাটিক ডাউনলোড করার অপশন চলে আসবে। এবং বিভিন্ন ফরম্যাটে ডাউনলোড করে পারবেন যেমনঃ অডিও, এইচডি ভিডিও ও নরমাল ইত্যাদি।

ইউটিউবের-ভিডিও-ডাউনলোড-করার-এপস

এভাবে এই অ্যাপগুলোর মাধ্যমে ইউটিউবসহ আরো বিভিন্ন সাইটের ভিডিও-অডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। ২.০ সাইটগুলো থেকে এই অ্যাপের মাধ্যমে ডাউনলোড করলে বেশি স্পিড পাবেন। ২.০ সাইট থেকে অনেক স্পিডে যেকোনো কিছু সংগ্রহ করা যায় যেমনঃ ইউটিউব একটি ২.০ ওয়েবসাইট।

কম্পিউটার দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার উপায়

পিসি দিয়ে আপনি অনেক ভাবেই ইউটিউবের ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। আপনি যদি গুগল ক্রম ব্রাউজার ব্যবহার করে থাকেন তাহলে বিভিন্ন এক্সটেশন পাবেন যেগুলোর মাধ্যমে যেকোনো ভিডিও সংগ্রহ করতে পারবেন সুপার ফাস্ট স্পিডে। তাহলে চলুন জেনে নেই কিভাবে কম্পিউটারের মাধ্যমে ইউটিউব video download করা যায়।

ইন্টারনেট ডাউনলোড ম্যানেজার

পিসি বা ল্যাপটপ দিয়ে যেকোনো ধরণের ভিডিও সংগ্রহ করার জন্য এই সফটওয়্যার খুবই জনপ্রিয়। এই এপস দিয়ে কোনো ফাইল ডাউনলোড করলে আপনি অনেক ভালো স্পিড পাবেন। ইন্টারনেট থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন অথবা ক্রয় করে নিতে পারেন। কারণ এই এপসটি একটি প্রিমিয়াম অ্যাপ।

ইন্টারনেট ডাউনলোড ম্যানেজার সফটওয়্যার কম্পিউটারে ইন্সটল করলে আপনার ব্রাউজারে অটোম্যাটিক একটি এক্সটেনশন ইন্সটল হয়ে যাবে। এবং সেটার মাধ্যমে আপনি যেকোনো অডিও-ভিডিও ফাইল সংগ্রহ করতে পারবেন সম্পূর্ণ ফ্রি। আপনি যখন কোনো ইউটিউব ভিডিও ওপেন করে দেখতে থাকবেন তখন ভিডিওর উপরের দিকে বা আশেপাশে ডাউনলোড করার অপশন চলে আসবে। তখন কোনো ঝামেলা ছাড়াই বিভিন্ন ফরম্যাটে ডাউনলোড করতে পারবেন।

স্টেপ-১

গান-ডাউনলোড-করার-সফটওয়্যার

স্টেপ-২

ইন্টারনেট-ডাউনলোড-ম্যানেজার

4k ভিডিও ডাউনলোডার

ইউটিউব থেকে ভিডিও সংগ্রহ করার জন্য এই সফটওয়্যারটি অন্যতম। আপনি হয়তো জানেন 4k-ফরম্যাটে ভিডিও ডাউনলোড করলে সবচেয়ে সুন্দর ও ফুল এইচডি দেখা যায়। এই সফটওয়্যারটি আপনি ইন্টারনেটে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। এবং চাইলে ফ্রি ও প্রিমিয়াম ব্যবহার করতে পারবেন।

সফটওয়্যারটির একটি বিশেষ সুবিধা হচ্ছে আপনি যখন ইউটিউবের কোনো চ্যানেলের প্লে লিস্ট চালু করে ভিডিও দেখতে থাকেন তখন প্লে লিস্টের সবগুলো ভিডিও আপনার ভালো লেগে যেতে পারে। এবং সেই ভিডিওগুলো এক ক্লিকে সংগ্রহ করার জন্য প্লে লিস্টের লিংকটি কপি করে 4k video downloader-এর মধ্যে পেস্ট করলেই সবগুলো ভিডিও ডাউনলোড হওয়া শুরু করবে।

আপনি যদি স্মার্ট মোড অন করে 4k-ভিডিও ডাউনলোডার দিয়ে ডাউনলোড করে থাকেন তাহলে অটোম্যাটিক ভিডিওর সবচেয়ে বেস্ট ফরম্যাটে ডাউনলোড হতে থাকবে। তাই সহজ ভাবে ফুল এইচডি ভিডিও সংগ্রহ করার জন্য এই সফটওয়্যারটি বেঁছে নিতে পারেন।

4k-ভিডিও ডাউনলোডার দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য আপনার পছন্দের ব্রাউজারের মাধ্যমে ইউটিউবে ভিজিট করে যেকোনো একটি ভিডিও ওপেন করবেন। এবং ভিডিওর লিংকটি কপি করে সফটওয়্যারের মধ্যে পেস্ট করে দিলে ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে।

স্টেপ-১

কম্পিউটার-দিয়ে-ইউটিউব-ভিডিও-ডাউনলোড

স্টেপ-২

কম্পিউটারে-ভিডিও-ডাউনলোড

Y2mate.Com

এটা একটি ওয়েবসাইট যার মাধ্যমে ইউটিউবের যেকোনো ভিডিও মেমোরি কার্ডে সংগ্রহ করা যায়। এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি মোবাইল এবং পিসি দুটিতেই YouTube video download করতে পারবেন।

এখন এই ওয়েবসাইট দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে ইউটিউবে ভিজিট করে যেকোনো একটি ভিডিও ওপেন করে ভিডিওর লিংক কপি করতে হবে। এবং সেই লিংক Y2mate.Com-সাইটে যেয়ে পেস্ট করতে হবে। এরপর এন্টার বা স্টার্ট বাটনে ক্লিক করলে আপনার কাছে ভিডিওটি শো করবে এবং বিভিন্ন ফরম্যাট আসবে ডাউনলোড করার জন্য। আপনি ডাউনলোডে ক্লিক করলে আবার ডাউনলোড করার অপশন আসবে এবং সেটায় ক্লিক করলে ভিডিও ডাউনলোডিং হতে থাকবে।

Y2mate.Com-থেকে কিভাবে video download যায় সেটা দেখার জন্য এই লিংকে ক্লিক করে নিচের দিকে দেখতে পারবেন।

Savefrom.Net

ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইন থেকে YouTube video download করার জন্য এই সাইটে ভিজিট করতে পারেন। প্রায় Y2mate.Com-সাইটের মতোই ইউটিউবের ভিডিও ডাউনলোড করার সিস্টেম।

ইউটিউবে ভিজিট করে যেকোনো ভিডিও ওপেন করে লিংক কপি করবেন এবং সেটা এই ওয়েবসাইটের মাধ্যে যেয়ে পেস্ট করে এন্টার চাপলেই ভিডিওটি আপনার সামনে চলে আসবে। এবং খুব সহজেই ডাউনলোড করতে পারবেন বিভিন্ন ধরণের ফরম্যাটে।

কিভাবে Savefrom.Net-থেকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে হয় সেটা যদি আপনি ভালো মতো না বুঝতে পারেন তাহলে Savefrom.Net-সাইটে প্রবেশ করতে পারেন। কারণ সেখান বিস্তারিত ভাবে ইমেজের মাধ্যমে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই ওয়েবসাইটের একটি সফটওয়্যারও রয়েছে যেটা কম্পিউটারে ইন্সটল করলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন খুব সহজেই। তখন ইউটিউবে কোনো ভিডিও ওপেন করলে ভিডিওর নিচে ডাউনলোড করার অপশন চলে আসবে।

সর্বশেষ,

এভাবে আপনি বিভিন্ন সফটওয়্যার ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। কোনো ভিডিও ডাউনলোড করতে সমস্যা হলে আমাদের জানাতে পারেন। আর্টিকেলটি পড়ে যদি ভালো লাগে তাহলে কমেন্ট করে জানাবেন এবং সবার কাছে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ!

About SM Simol

আমি সিমুল, বিশ্ববিদ্যালয় পড়াশোনা করি ও এর পাশাপাশি আমি একজন আর্টিকেল রাইটার। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে এই সাইটে ব্লগ পোস্ট পাবলিশ করি ও "BanglaAdvice.Com"-সাইটের (এডমিন) আমি। আমার সৃজনশীল মেধাশক্তিকে কাজ লাগিয়ে আর্টিকেল তৈরি করে থাকি এবং বিভিন্ন সাইট এর আলোচিত খবর গুলো প্রকাশ করে থাকি ।

Check Also

কষ্টের ভিডিও গান ডাউনলোড

কষ্টের ভিডিও গান ডাউনলোড করুন খুব সহজে

যখন আপনার মন ভালো না থাকে তখন এই কষ্টের ভিডিও গান ডাউনলোড করে দেখতে পারেন। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *